এসেছিল সে

সে এসেছিল,দেখতে আমায়
সে এসেছিল,জানাতে আমায়
আমার নিকানো উঠানে,
পায়ের ছাপ তার
জানতে এসেছিল,অতীত ভালবাসার পদাবলী।

আমার প্রাত্যহিকতা,
আমার কপালে রক্তবর্ন সিঁদুর
শুভ্র শাখা যুগল
দেখতে সে এসেছিল।

বালুচরে ভেঙে ভেঙে যায়
বালির পাহাড় আমার,
উদ্বাস্তু জীবনের নোনাজলে, ভিজেছি কেমন
দেখতে এসেছিল সে।

স্বপ্নহীন রাতে স্বপ্নের পসরা সাজিয়ে
ভালবাসার অবশিষ্টটুকুর অধিকার নিতে
সে এসেছিল।

তার অস্তিত্ব জানাতে সে এসেছিল
স্মৃতির বাক্সের চাবি নিয়ে এসেছিল
আমার দিনলিপি,তাকে ছাড়া চলছে বেশ
বদ্ধ কপাটের কড়া নেড়ে
সে এসেছিল।

নায়রী আমি, নোনাজলে নিত্য স্নান
নাও ভাসাতে,এসেছিল সে
নিয়ে নোঙ্গর, মাঝ নদীতে।

শুধু জানে নি সে
অতীত করে না বাস বর্তমানের কোলে
অতীতস্মৃতির হাট বাজারে বেচাকেনা
বাকীই থাকে,সব বকেয়া।

অতীত গিয়েছে ডুবে
অতীত অতলে।
অতীত বর্তমানের দূরত্ব ঘোচে না জেনেও
সে এসেছিল-_
মেটাতে এক জীবনের দায়।

-ফারহানা নীলা