নাম দিলাম শিউলি

জানালার বাহিরে হাত বাড়ালেই
শিউলি বৃক্ষ ছোঁয়া যায়,
প্রতি ভোরে এক প্রেমীর ঘুম ভাঙ্গে
শিউলি কুড়ানিদের তাড়নায়।
তাদেরই একজনে ভালো লাগে
দেখে অপলক তারে,
খিল খিল হাসে চলায় নুপুর ঝঙ্কায়।
মাঝে মাঝে গাছ ঝারি দেয়
শিউলি বর্ষায় কোঁচর উচ্ছলায়।
প্রেমী সে রূপে মুগ্ধ
শুধুই দেখে কিন্তু থাকে লুকায়ে।
বলিতে পারেনা তারে মনের কথা আর
গোপনে, নীরবে মরে বেদনায়।
এবার বেশ কিছুদিন হয়
আসে কুড়ানিদের দল
শুধু সে কোথায়!
এই ভোরে সাথীদেরে
চমকায় জিজ্ঞাসায়,
” তোমাদের দলের উনি
আজ কেন আসে নায়?”
তাহারা হাসিয়া বলে,
” ও দিদি, দিদি ত বিয়ার পর
গেছে দূর গাঁয়।”
কাঠের জানালা বন্ধে ঝটিকায়।
কি কারণে প্রেমী বুক ধুকি উঠে,
হয় বিদীর্ণ, কাতরে মুষড়ায়।
স্বপন ভাঙ্গিয়া অতি বেদনায়,
মনে মনে আস্ফালনে
যে ছিল রানী এক শিউলি
কবে তারে আর কোথা পায়!

-গিনি ইসলাম