নূরানী আপনি

আপনার চেহারা নূরানী… আপনার চোখে কাম কাম জ্যোতি।
আপনার লেবাসে আতর সুবাস,
আপনার নুরানী লেবাস।
সুরমা আঁকা চোখে আপনার কিসের এত আশ?
আপনি সম্মানী জনাব।

আপনার শরীরে কেন এত তিয়াস?
স্থান, কাল,পাত্র কিছুতেই মেটে না পিয়াস।
ক্ষুধার্ত শার্দুলের মত অথবা তপস্বী বেড়ালের মত….
কখনো কখনো বড় বেয়ারা আপনি।
আবার কখনো বড় আদুরে….
মাংসাশী প্রাণীর আদলে বড় বেশী লোভাতুর
আপনার প্রসারিত দৃষ্টি …. ভেদ করে বয়সের বিস্তর ফারাক।

এই আপনি তো কারো বাবা, কারো ভাই, কারো আদরের সন্তান, কারো স্বামী!
তবে তাই হোক….
আপনার দিলে কামনার বারুদ জ্বলুক। পুড়ে মরুক পতঙ্গের মত জীবন।

আর আপনার ঘরের মেয়েটা, বউটা,বোনটা,অথবা আপনার জননী….. ব্যবহৃত হোক আর কারো কামনার বিষ বাষ্পে।
কারো কুনজরে পড়ুক আপনার ঘরের নিকাবী কেউ!
পোষাকের দোহাই বন্ধ হোক!
বন্ধ হোক আপনার শোরগোল।
আপনার ঘরেও ঢুকুক আপনার মতন আরো কোন নুরানী আতর।
নুরানী লেবাসে আর কেউ লুটে নিক আপনার সর্বস্ব।

ভয় পাবেন না জনাব…..
একদম ভয় পাবেন না।
বিকৃত বিকার শুধু আপনারই নয়… এমন বিকৃতরূপ আরো কত আছে!
অপেক্ষা করুন জনাব…. অপেক্ষা করুন
আপনার অপেক্ষিত ক্ষণ…. আর নয় সুদূর।
পুরুষত্ব তো আপনার একার নয়…. আর পুরুষের কামনার রঙে রঙিন হোক আপনার একান্ত বাধ্যানুগত স্বজন।
আহা আপনার লেবাসে কত কামনার আবাস….
আপনার টুপি দাঁড়িতে কত শয়তানের বাস!

-ফারহানা নীলা