প্রকাশ্য ঘোষণা

জনৈক মহামান্য নাসিকার পশম টানতে টানতে বললেন- ‘অমুক-তমুক দেশেও ধর্ষণ হয়’
বাস! এ দেশ কী এমন রাজাধিরাজের দেশ যে, এদেশে ‘এসব’ হতে পারবে না?
আমরা কী এমন রানি -মহারানি যে, আমাদের মাথায় তুলে নাচতে হবে?
আমরা অণ্ডকোষের নিচে চাপা পড়া মাংসের দলা
আমাদের কাঁচা চিবিয়ে খাওয়া যায়
মশলায় কষিয়ে মুখরোচক করে খাওয়া যায়
গিলেও নেওয়া যায় আস্ত; তাই তো ভেবে এসেছেন এতকাল?

এইবার থামুন!
লাগাম দিন আপনাদের উত্থিত শিশ্নে
আমরা আর শাস্তি চাই না, প্রতিবাদও নয়
মিটিং নয়, মিছিল নয়
এবার থেকে প্রতিরোধ করবো স্বহস্তে
কোনো নোংরা হাত আমাদের সুগন্ধি স্তন ছুঁতে এলে
নখাগ্রে বিদ্ধ করবো বিষাক্ত ফলা আর
লোলুপ চক্ষুগোলক বরাবর ছুঁড়বো জলন্ত সীসা
লালসায় ভরা মুখ গহ্বরে প্রসন্ন চিত্তে ঢালবো রাইসিন বিষ
মৃত্যুযন্ত্রণায় কাতরাতে থাকবে নরকের কীট আর এই ফাঁকে-
সহাস্যে টেনে বার করে অভুক্ত কুকুরের পেটে চালান করবো
ধর্ষকের লালা ঝরা ঘৃণ্য জিভ।
কী হে, বিশ্বাস হচ্ছে না?
আরেকবার হাত বাড়িয়ে দেখুন
হাত কেটে জমা দিয়ে দেবো রাষ্ট্রীয় কোষাগারে!

বীথি রহমান