বিমানের বার্ড স্ট্রাইক সমস্যা ও ইঞ্জিনে সাদা রঙের রেখার ব্যবহার

বিমানের বার্ড স্ট্রাইক সমস্যা ও ইঞ্জিনে সাদা রঙের রেখার ব্যবহার।

বিশ্বের সব জায়গায় পাখি পালনের অনুমতি থাকলেও বিমানবন্দর এলাকায় পাখি পালন করা নিষিদ্ধ। পাখি পালনের উপর নিষেধাজ্ঞা ও বিমানের ইঞ্জিনের মধ্যবিত্তে সাদা রেখাটি নিয়ে আমাদের অনেকের মধ্যেই রয়েছে কৌতূহল।
বিমান চলাচলে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে “Bird Strike” বা পাখির আক্রমণ থেকে বিমানকে বাঁচানো। বার্ড স্ট্রাইক বেশি ঘটে টেকঅফ এবং ল্যান্ডিংয়ের সময় কারন তখন উড়োজাহাজটি কম উচ্চতায় থাকে।
একটা সময় আকাশ ছিল পাখিদের দখলে। কিন্তু এখন সেই স্থানটি দখল করে নিয়েছে বিভিন্ন ধরনের ও আকারের বিমান। একটি উড়ন্ত বিমানে পাইলটের সামনের স্ক্রিনে বা ইঞ্জিনে পাখি আঘাত করলে সাধারণত ইঞ্জিনের Fan Blade এবং spinner অনেক ক্ষতির সম্মুখীন হয়। কখনো ইঞ্জিন সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে যায়। পাইলটদের বিশেষ করে এই ধরনের ঘটনাগুলিতে জরুরি অবতরণের জন্য প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

প্রতিবছর, এমন ঘটনার ফলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তাদের প্লেনের রক্ষণাবেক্ষণে অতিরিক্ত ১১২ কোটি ডলার খরচ করে। আর সেটা বিমান মেরামতের জন্যই হয়। তাছাড়া ফ্লাইট বিলম্ব এবং বাতিলের কারণে ক্ষতির পরিমাণতো রয়েছেই।

ইন্টারন্যাশনাল সিভিল এভিয়েশন অর্গানাইজেশন (আইসিএও) ২০১১-১৪ সালে ৬৫ হাজারেও বেশি বার্ড স্ট্রাইকের কথা জানিয়েছে। ইতিহাসে, অরভিল রাইট ১৯০৫ সালে প্রথমবার পাখির আঘাতের সম্মুখীন হয়েছিল। ১৯৮৮ সালে টেকঅফের সময় পায়রা ইঞ্জিনে আঘাত করে এবং বিমান দুর্ঘটনায় পড়ে ৩৫ জন যাত্রী মারা যায়।

তারপর থেকে শুরু হয় পাখির আক্রমণ থেকে বিমানকে রক্ষা করার উপায় নিয়ে গবেষণা। একটি সময় কৃষি কাজে ব্যবহৃত “কাকতাড়ুয়া” (কৃষি জমি মানুষ আকৃতির কালো পুতুল তৈরি করে সাদা রঙের দাগ দিয়ে মাটিতে দাঁড় করিয়ে রাখা) মাধ্যম থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে ইঞ্জিনের ঠিক মধ্যেখানে অবস্থিত কালো রঙের স্পিনারের মধ্যে সাদা রেখা ব্যবহার করা শুরু করেন। এতে কিছুটা হলেও পাখির আক্রমণ কমেছে বলে সংশ্লিষ্টদের অনেকেই মনে করছেন। পাশাপাশি পাখির জীবন বাঁচাতে বিমান বন্দর এলাকায় পাখি লালন পালন  নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

বিমানের ইঞ্জিন স্পিনারের সাদা রেখার ডিজাইন ব্যবহার  করার আরেকটি কারণ হল গ্রাউন্ড স্টাফদের নিরাপত্তার জন্য। একটি চলমান জেট ইঞ্জিন কাছাকাছি কাজ করা অস্বাভাবিক বিপজ্জনক।
গ্রাউন্ড এ চলন্ত অবস্থায়  একটি ইঞ্জিনের সামনে এবং প্রান্তের প্রায় ৯ থেকে ১৪ ফুট পর্যন্ত একটি ঝুঁকিপূর্ণ এরিয়া বলা হয়। ইঞ্জিনের ব্লেডগুলো এত দ্রুত গতিতে চলে যে আশে পাশে থাকা যে কোন জিনিসকে ইঞ্জিনের ভিতরে টেনে নেয়ার একটা ইনটেনশন থাকে। এক কথায় বলা যায়, বিমানের ইঞ্জিন স্পিনারে সাদা রেখা ব্যবহার করা হয় গ্রাউন্ড স্টাফদের নিরাপত্তা এবং আকাশ পথে পাখিদের সতর্ক করার জন্য।

– কাজী ইসমাইল আলম
দুবাই, সংযুক্ত আরব আমিরাত।