ভালো মন্দের হিসাব নিকাশ

লোকটা হাতে এক টুকরা সাদা কাপড় নিয়ে ঘুরতেছে। লোকজন বলবলি করতেছে- এর হাতে এইটা সব সময়ই দেখা যায়। এইটা শুধু সাদা কাপড় না। এইটা কাফনের কাপড়।

আদৌ এইটা কাফনের কাপড় কি না সেই ব্যাপারে কোনো ব্যাখা লোকটা কোনোদিন কাউরে দেয় নাই। এই জ্ঞান পাবলিকের কল্পনাপ্রসূত। যেহেতু কাপড় খানা সাদা, এইটা দিয়া সে চোখমুখও মোছে না, কোনো কাজেও লাগায় না, অকাজে সাদা কাপড় বহনের মানে কী? সুতরাং এইটা কাফনের।

আমি অবশ্য লোকটারে সাদা কাপড়ের টুকরাটা অন্যকাজে ব্যবহার করতে দেখলাম। সে রাস্তায় এরে তারে থামায়া কাপড়টা দেখায়া জিজ্ঞেস করতেছে- এইখানে কি রং আছে কও দেখি?
লোকেরা বলতেছে- এইটাতো এক্কেরে সাদা। রং কই? এইখানে কোনো রং নাই।

লোকটা ফ্যা ফ্যা করে হাসতে হাসতে বলতেছে- আছে আছে। রং বিনে সাদা হয় না। কোনো রং নাই মানে কালো। সব রং একটু একটু আছে মানে সাদা। অথচ এইটা চোখে পড়ে না কারো! সব শালা হিপোক্রেট!

পাবলিক চিন্তিত মুখে বিষয়টা ভাবার চেষ্টা করতেছে। এর মধ্যেই একজনের গলা পাওয়া গেল- ব্যাডায় ঠিকই কইছে। আমরা সাদা চোখে কিছুই নাই নাই করি। তলে তলে বহুত কিছু আছে। কালো মানেই বুড়া না। সেইখানেই বরং কিছুই নাই, হইতে পারে।

-রবিউল করিম মৃদুল