সংলাপ


বিদায় নেবার আগে আমার দিকে
পিছু ফিরে তাকিয়ে ছিলে কি—বলতে পারব না
আমার ঝাপসা দৃষ্টির বাইরে
আকাশ তখন কাঁদছিল খুব
আমি সেই কান্না দেখছিলাম যে!

পিছু ফিরে আমি তাকিয়ে ছিলাম
আমার ঝাপসা দৃষ্টিতে শুধু অবয়ব তোমার
তুমি তো দেখনি আমায়!
আকাশের কান্না দেখছিলে তখন!

স্মৃতির আর্কাইভে কত কিছু জমা ছিল
বহুদূরী মেঘের গুড় গুড় বিজলীর চমক
উদাসী প্রান্তরে ঝুপ করে সন্ধ্যা নামার খেয়াল
ভেজা পত্র ছায়ায় ভিজে জবুথবু শেয়াল!
না না শেয়াল বোধহয় নিশাচর— তবু তাই মনে হল,
ভর দুপুরে কাল মেঘের ছায়ায় সেটাই দেখেছিলাম,
কতবার দেখেছি রাস্তার জমা জলে কাকের স্নান!
তোমার হুড তোলা রিক্সায় ঝরা জল
এড়ানোর মিথ্যে প্রয়াস
বৃষ্টিসিক্ত তোমার ঠান্ডা আঙুল গুলো
স্পর্শ করেই ছেড়ে দিয়েছি!
তাতে স্ফুলিঙ্গ ছিল হয়তো—
তোমার গভীর নিঃশ্বাস টের পেয়েছি,
বুকের ঢিপঢিপ ,আয়তো চোখের কাজল অথবা
লাল টিপ খসে গেছে জলের চুম্বনে…
দৃষ্টির পারাবারে নয়, মনের গহীন অরণ্যে
যেখানে ভালবাসা
পালাবার পথ খুঁজে পায় নি কখনও—
বিদায়ে তাই বৃষ্টিকেই দেখছিলাম
পিছু ফিরে দেখেছ কি জানিনা!

আর আমি, সমস্ত ঝাপসা দৃষ্টি নিয়ে
পিছু ফিরে তোমার চাহনি খুঁজেছি শুধু!!!

-পলাশ পুরকায়স্থ

ছবি কৃতজ্ঞতা -শওকত শাওন